শিক্ষকরা যত উন্নত হবেন, তারা তত ভালো প্রডাক্ট বানাতে পারবেন: যবিপ্রবি উপাচার্য

নিউজ ডেস্ক: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেছেন, শিক্ষকরা হলেন মানুষ গড়ার কারিগর। এ কারিগররা যত উন্নত হবেন, তারা তত ভালো প্রডাক্ট বানাতে পারবেন। অর্থাৎ দেশের জন্য তারা দক্ষ ও মানসম্মত নাগরিক তৈরি করতে পারবেন।

গতকাল সকালে যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে অনলাইন ক্লাসের জন্য ‘অনলাইন লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যবিপ্রবি উপাচার্য এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতা এবং অন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকতার মধ্যে কিছু মৌলিক পার্থক্য রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের হতে হয় মুক্তমনা। এ মুক্ত মন নিয়ে তারা দেশের জন্য কিছু মুক্তমনা মানুষ তৈরি করেন। যবিপ্রবির শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আসুন আমরা এমন একটি বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করি, যেখানে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ-চিন্তা-চেতনার লালন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণের জন্য দিন-রাত যে নিরলস পরিশ্রম করছেন, যেন তার প্রতিফলন হয়। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমন গ্র্যাজুয়েট তৈরি করতে হবে, যারা চাকরি চাইবে না, মানুষকে চাকরি দেবে।

অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, অনলাইনে খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে দ্বিতীয় সেমিস্টারের ক্লাসও শুরু করা হবে। এজন্য প্রথমে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে, যেন তারা যথাযথভাবে এ পদ্ধতির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বিষয়টি বোঝাতে পারেন।

যবিপ্রবির কম্পিউটার প্রকৌশল ও প্রযুক্তি (সিএসই) বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গালিবের পরিচালনায় প্রশিক্ষণ কর্মশালায় কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ড. মো. মেহেদী হাসান, সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আসিফ নাসিরী ও ড. মো. আলম হোসেন বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্য হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এডুকেশন টেকনোলজি অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের (ইটিআরসি) দুজন বিশেষজ্ঞ অনলাইনে ক্লাস নেয়ার পদ্ধতি সম্পর্কে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY