জঙ্গিবাদের কোনো ঠাঁই নেই এদেশে

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর বলেছেন, এদেশে জঙ্গিবাদের ঠাঁই নেই, যেকোনো মূল্যে তাদের প্রতিহত করতে হবে। একটি অশুভচক্র দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে নানাভাবে ষড়যন্ত্র করছে। এতে কোনো লাভ হবে না। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের জোয়ারে ওইসব ষড়যন্ত্রকারীরা ভেসে যাবে।

আজ সোমবার (১৪ সেপ্টম্বরের) কুমিল্লার লাকসামে বিভিন্ন দপ্তরের আওতাধীন চলমান উন্নয়ন প্রকল্পে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন, উপকরণ বিতরণ ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ওইদিন দুপুরে উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনয়নের মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভা শেষেপ্রধান অতিথি কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর উপকারভোগীদের হাতে বিভিন্ন উপকরণ ও অন্যান্য সামগ্রী তুলে দেন।

গোবিন্দপুর ইউনয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন শামীমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, লাকসাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. ইউনুস ভূঁইয়া, লাকসাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এ কে এম সাইফুল আলম, পৌরসভা মেয়র অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মহব্বত আলী।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর উপজেলা ভূমি অফিসের আওতায় ভূমিহীনদের মাঝে নতুন বন্দোবস্তকৃত খাস ভূমির খতিয়ান হস্তান্তর, সেলাই মেশিন, ফগার মেশিন, চিকিৎসা সরঞ্জাম, স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মাস্ক, সাবান ও ব্লিচিং পাউডার বিতরণ, ছাত্রীদের মাঝে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরন। এছাড়া, সমাজ সেবা অফিসের আওতায় বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধীদের ভাতা প্রদান এবং এডিপি’র আওতায় প্রতি স্কুলে খেলাধুলার সামগ্রী বিতরণ করেন।

এদিকে প্রকল্প বাস্তবায়ন অধিদপ্তরের আওতায় শিশু খাদ্য ও হতদরিদ্রদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ এবং কৃষি অধিদপ্তরের আওতায় শাক-সবজির বীজ, মৎস্য অধিদপ্তরের আওতায় জেলেদের মাঝে সেলাই মেশিন ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতায় আর্সেনিকমুক্ত টিউবওয়েল, সাবমারসিবল পাম্প, ওয়াটার ট্যাংক বিতরণ করেন। পরে জেলা প্রশাসক সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) উজালা রানী চাকমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা, উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা।

দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর লাকসাম উপজেলার অধীনস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন এরপর তিনি উপজেলা ভূমি অফিস পরিদর্শন ও লাকসাম পৌরসভা কার্যালয়ে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু কর্ণার পরিদর্শন করেন, পৌর মেয়র ও পৌর কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন এরপর তিনি লাকসাম উপজেলা কেন্দ্রীয় মডেল মসজিদ ও ইসলামী রিসোর্স সেন্টার ডাকবাংলো জায়গা পরিদর্শন করেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY