করোনায় কমেছে চাকরিজীবী নারীর কাজের সময় , গৃহস্থালি কাজের চাপ বেড়েছে

কোভিড-১৯ মহামারি নারী ও পুরুষের মাঝে আলাদাভাবে প্রভাব ফেলছে বলে মঙ্গলবার এক সমীক্ষায় ওঠে এসেছে।

এ জন্য এ ধরনের সঙ্কট মোকাবিলায় লিঙ্গ সম্পর্কিত তথ্য ব্যবহার করে সমাধান খোঁজা গুরুত্বপূর্ণ বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

করোনা প্রাদুর্ভাবের পরে, কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে নারীদের বড় অংশের প্রায় ৫৩ শতাংশের বেতনভিত্তিক কাজের সময় কমেছে। পুরুষদের ক্ষেত্রে যা প্রায় ৩১ শতাংশ।

কোভিড-১৯ কে মহামারি ঘোষণার এক সপ্তাহের মধ্যে ইউএন উইমেন ১১ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশে সেসব দেশের সরকার ও মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটরদের সাথে মিলে একাধিক মূল্যায়ন সমীক্ষা চালিয়েছে।

দেশগুলো হলো বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, কম্বোডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, নেপাল, মালদ্বীপ, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, সামোয়া, সলোমন দ্বীপপুঞ্জ এবং থাইল্যান্ড।

এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের বিষয়ে ‘আনলকিং দ্য লকডাউন: দ্য গ্রেন্ডারড ইফেক্টস অব কোভিড-১৯’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

ব্যাংকক থেকে প্রকাশিত এ প্রতিবেদনে দেখা গেছে, লকডাউন অবৈতনিক গৃহস্থালি কাজকে এক অত্যাবশ্যক সেবা হিসাবে পরিণত করেছে। যার বেশিরভাগই নারীদের কাঁধে পড়েছে।

প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ৫৫ শতাংশ পুরুষের তুলনায় ৬৩ শতাংশ নারীর এসব কাজের ক্ষেত্রে বেশি সময় দিতে হচ্ছে।

সঞ্চয়, বিনিয়োগ এবং সম্পত্তি থেকে আয়ের ক্ষেত্রে ৬৬ শতাংশ নারীর আয় কমেছে। আর পুরুষদের ৫৪ শতাংশ কমেছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY